মার্চের মধ্যে ইউরোপ ও এশিয়ায় আরো সাত লাখ মৃত্যুর আশঙ্কা

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক

আগামী মার্চের মধ্যে করোনাভাইরাসে ইউরোপ ও এশিয়ায় মৃত্যু হতে পারে আরো সাত লাখ মানুষের। এমন সতর্কতা জারি করেছে খোদ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা- ডব্লিউএইচও। এরই মধ্যে ইউরোপের ৫৩টি দেশে মৃতের সংখ্যা পৌঁছে গেছে ১৫ লাখের কাছাকাছি।

কেবল জার্মানিতেই মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে এক লাখ। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছে তিনশ’রও বেশি। করোনা শনাক্ত হয়েছে প্রায় ৭০ হাজার জনের। শীতের কারণে ইউরোপ জুড়ে দেখা দিয়েছে সংক্রমণের এই নতুন ঢেউ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, মার্চের মধ্যে আইসিইউ সংকটে পড়বে এই অঞ্চলের অন্তত ৪৯টি দেশ। দেখা গেছে, গেল সপ্তাহে সারা বিশ্বে করোনায় যত মানুষ মারা গেছে ও সংক্রমিত হয়েছে, তার ৬০ শতাংশেরও বেশি ইউরোপের। এ কারণে ভ্যাকসিন দিয়ে নিরাপদ ভাবার কোন কারণ নেই বলেও সতর্ক করেছে ডব্লিউএইচও।

এ অবস্থায় প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য বুস্টার ডোজের কথা ভাবছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পাবকিল হেলথ এজেন্সি। সংক্রমণের হার বাড়তে থাকলে নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে বলে আগাম ঘোষণা দিয়েছে পোল্যান্ড ও নেদারল্যান্ড।

যুক্তরাজ্যের সাবেক ভ্যাকসিন জার মহামারীর নতুন ধাক্কাকে সেদেশের নিরাপত্তা হুমকির সাথে তুলনা করেছেন। ব্রিটেনে সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ৪৩ হাজার ৬৭৬ জন। মাত্র সাতদিনে এই সংখ্যা ছাড়িয়েছে তিন লাখ তিন হাজার। আগের সপ্তাহের চেয়ে সংক্রমণের হার বেড়েছে ১১ শতাংশেরও বেশি।